• মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ০৬:৩২ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
নিউইয়র্কে সেইভ দ্য পিপল’র উদ্যোগে হালাল খাদ্য সামগ্রী বিতরণ সিন্দুকছড়ি জোনের পক্ষ থেকে মানবতা ও সমাজ কল্যাণে মানবিক সহায়তা ও ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ সিন্দুকছড়ি জোনের পক্ষ থেকে মানবতা ও সমাজ কল্যাণে চিকিৎসা সহায়তা প্রদান ফেনীতে রিসাইক্লিং বিজনেস ইউনিটের উদ্বোধন ওয়েব সাইট চালাতে খরচ বাড়বে, কর অব্যাহতি চান ডোমেইন হোস্টিং ব্যবসায়ীরা ভূয়া জামিন নামায়, আসামির জামিন হলুদ সাংবাদিকদের হয়রানির শিকার নানান শ্রেনীপেশার মানুষ সালমান খানকে ফের হামলার পরিকল্পনা, গ্রেপ্তার ৪ নয়াদিল্লিতে বঙ্গবন্ধুর জীবনীমূলক চলচ্চিত্রের প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত জাতিসংঘে বাংলাদেশি শ্রমিকদের অধিকার রক্ষার প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত মালয়েশিয়ার

একাধিক অস্ত্র ও মাদক মামলার আসামি কদমতলী থানা জাতীয় শ্রমিক লীগের সদস্য সচিব

অনলাইন ভার্সন
অনলাইন ভার্সন
আপডেটঃ : রবিবার, ১৩ আগস্ট, ২০২৩

বিশেষ প্রতিনিধি
সদ্য ঘোষিত ঢাকা মহানগর দক্ষিণ জাতীয় শ্রমিক লীগের আওতাধীন কদমতলী থানা জাতীয় শ্রমিক লীগ সম্মেলন প্রস্তুতি আহ্বায়ক কমিটির সদস্য সচিব মো: বাপ্পারাজ ওরফে বাপ্পা’র নামে রাজধানী ঢাকার শ্যামপুর থানা ও কদমতলী থানায় একাধিক অস্ত্র ও মাদক মামলা থাকার অভিযোগ রয়েছে।অনুসন্ধানে জানা যায় মোঃ বাপ্পারাজ এর নামে ঢাকার কদমতলী থানায় দুটি অস্ত্র মামলা (এফআইআর নং-৫২.28C4V) এফআইআর নং-১৩.(25Q41)। এছাড়া শ্যামপুর থানা ও কদমতলী থানায় মাদক মামলা সহ রয়েছে আরও ছয়টি মামলা।সংশ্লিষ্ট থানা দুটোর পিসিপিআর সূত্রে বাপ্পারাজের বিরুদ্ধে মামলা গুলোর সত্যতা পাওয়া যায়।
২০১০ সাল থেকে ২০২৩ সালের ১১ই জানুয়ারী তারিখ পর্যন্ত এই সকল মামলা হয়।কদমতলী থানা জাতীয় শ্রমিক লীগ সম্মেলন প্রস্তুতি আহবায়ক কমিটির সদস্য সচিব বাপ্পারাজের বিষয়ে জানার জন্য ঢাকা মহানগর দক্ষিণ জাতীয় শ্রমিক লীগের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য সচিব আব্দুর রাজ্জাক মাতবর এর মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে বিস্তারিত শুনার পরে তিনি এই প্রতিবেদককে বলেন কদমতলী থানা জাতীয় শ্রমিক লীগ সম্মেলন প্রস্তুতি আহ্বায়ক কমিটির সদস্য সচিব মোঃ বাপ্পারাজ এর নামে একাধিক অস্ত্র ও মাদক মামলা রয়েছে তা তিনি জানতেন না,তিনি আরও বলেন জাতীয় শ্রমিক লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির এক প্রভাবশালী নেতার সুপারিশে বাপ্পারাজকে সদস্য সচিব করা হয়।এই প্রতিবেদক বার বার সেই প্রভাবশালী নেতার নাম জানতে চাইলে তিনি নাম জানাতে অনিহা প্রকাশ করেন।
পরবর্তীতে এই প্রতিবেদক সদস্য সচিব আব্দুর রাজ্জাক মাতবর এর কাছে প্রশ্ন রাখেন যেখানে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা জঙ্গিবাদ অস্ত্রবাজ সন্ত্রাসী ও মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি ঘোষণা করেছেন সেখানে আপনি/আপনারা জাতীয় শ্রমিক লীগের মতো গুরুত্বপূর্ণ একটি সংগঠনের ভিতরে একাধিক অস্ত্র ও মাদক মামলার আসামিকে কি করে কদমতলী থানা জাতীয় শ্রমিক লীগের সম্মেলন প্রস্তুতি আহ্বায়ক কমিটির সদস্য সচিব এর পদ দিলেন? এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি এই প্রতিবেদককে বলেন অভিযোগ পেলে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
কদমতলী থানা জাতীয় শ্রমিক লীগ সম্মেলন প্রস্তুতি আহ্বায়ক কমিটির আহবায়ক মোঃ ইসমাইল হোসেন এর মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি এই প্রতিবেদককে বলেন সাংবাদিক ভাই এই বিষয় নিয়ে আপনি জাতীয় শ্রমিক লীগ ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সদস্য সচিব আব্দুর রাজ্জাক মাতবর ভাই এর সাথে যোগাযোগ করতে পারেন তিনি সবচেয়ে ভালো বলতে পারবেন।
পরবর্তীতে একাধিক অস্ত্র মাদক মামলার আসামি কদমতলী থানা জাতীয় শ্রমিক সম্মেলন প্রস্তুতি আহ্বায়ক কমিটির সদস্য সচিব মোঃ বাপ্পারাজের মুঠোফোনে তার নামে একাধিক অস্ত্র ও মাদক মামলার বিষয় জানতে চাওয়া হলে তিনি এ প্রতিবেদককে বলেন এইসবই রাজনৈতিক মামলা।এই প্রতিবেদক যখন তার কাছে জানতে চান যে একাধিক অস্ত্র ও মাদক মামলা কি রাজনৈতিক মামলা হতে পারে? তার কাছে এই প্রশ্নের কোনো উত্তর পাওয়া যায় নাই। কদমতলী থানা এলাকায় গুঞ্জন শোনা যায় মোটা অংকের টাকার বিনিময় মোঃ বাপ্পারাজ কদমতলী থানা জাতীয় শ্রমিক লীগ সম্মেলন প্রস্তুতি আহ্বায়ক কমিটির সদস্য সচিবের পদ ভাগিয়ে নিয়েছেন।
(অনুসন্ধান চলমান)


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো নিউজ