• মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ১১:০০ অপরাহ্ন

কারাবন্দি আলেমদের মুক্তির দাবিতে প্রধানমন্ত্রীকে স্মারকলিপি

অনলাইন ভার্সন
অনলাইন ভার্সন
আপডেটঃ : রবিবার, ২০ আগস্ট, ২০২৩

নিজস্ব প্রতিবেদক

মামুনুল হকসহ কারাবন্দি আলেমদের মুক্তির দাবিতে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি দিয়েছে শায়খুল হাদিস পরিষদ।

রোববার (২০ আগস্ট) কেন্দ্র ঘোষিত সারাদেশে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান কর্মসূচির অংশ হিসেবে ঢাকা জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে স্মারকলিপি দেন শায়খুল হাদিস পরিষদের প্রধান পৃষ্ঠপোষক ও বেফাক মহাসচিব মাওলানা মাহফুজুল হক।

স্মারকলিপি প্রদানের পূর্বে অনুষ্ঠিত সংক্ষিপ্ত সমাবেশে মাহফুজুল হক বলেন, আমরা শান্তিপূর্ণ কর্মসূচির মধ্য দিয়ে কারাবন্দি আলেমদের মুক্তি এবং আলেম-ওলামা ও তাওহিদী জনতার বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানিয়ে আসছি। সরকার যদি দাবি মেনে না নেয় তাহলে আমরা কঠোর কর্মসূচি দিতে বাধ্য হব।

শায়খুল হাদিস পরিষদের সভাপতি মাওলানা তাফাজ্জুল হক আজিজের সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক মাওলানা হাসান জুনাইদের পরিচালনায় বক্তব্য দেন পরিষদের সহ-সভাপতি মাওলানা আতাউল্লাহ আমীন, মাওলানা আবুল হাসানাত জালালি, সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা ফজলুর রহমান।

শায়খুল হাদিস পরিষদের সভাপতি মাওলানা তাফাজ্জুল হক আজিজ বলেন, প্রধানমন্ত্রী বিভিন্ন প্রোগ্রামে বলেছেন, উনি ইসলাম ও আলেম ওলামাদের খেদমত করেন। একদিকে উনি আলেম ওলামাদের প্রতি নিজেকে শ্রদ্ধাশীল দাবি করেন অপরদিকে আলেমদের দীর্ঘদিন অন্যায়ভাবে কারাগারে বন্দি রাখছেন।

তিনি প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে বলেন, আপনি আপনার দাবিতে সত্যবাদী হলে, দ্রুত সময়ের মধ্যে মাওলানা মামুনুল হকসহ কারাবন্দি আলেমদের মুক্তি দিন ও তাদের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করুন।

শায়খুল হাদিস পরিষদের সহ-সভাপতি মাওলানা আতাউল্লাহ আমীন বলেন, সরকারের একটি মহল আলেম ওলামাদেরকে অপবাদ দিয়ে দীর্ঘদিন ধরে কারাগারে বন্দি করে রেখেছে। আমরা সরকারকে বলতে চাই, মাওলানা মামুনুল হকসহ আলেমদের মুক্তি অংশগ্রহণমূলক ও সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য অপরিহার্য। এই বছরে আপনারা যদি শান্তিপূর্ণভাবে নির্বাচন করতে চান তাহলে আলেম ওলামাদের দ্রুত মুক্তি দিন।

সমাবেশে আরও উপস্থিত ছিলেন শায়খুল হাদিস পরিষদের মিরপুর জোনের সভাপতি মুফতি শফিকুল ইসলাম, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাওলানা এহসানুল হক, মাওলানা আব্দুল মুমিন, অর্থ সম্পাদক মাওলানা শামছুল আলম, অফিস ও আইন বিষয়ক সম্পাদক মাওলানা শরীফ হুসাইন, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মাওলানা আল আবিদ শাকির, সমাজকল্যাণ সম্পাদক মাওলানা মাসনুন মুহিব্বুল্লাহ, যুগ্ম-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মাওলানা নেয়ামতুল্লাহ আমীন, যুগ্ম-অফিস সম্পাদক মাওলানা মুবাশ্বির আহমাদ, কেন্দ্রীয় সদস্য মাওলানা মুর্শিদুল আলম সিদ্দিকী, গুলশান জোনের যুগ্ম আহ্বায়ক মাওলানা আনোয়ার হুসাইন রাজি, যুগ্ম সদস্য সচিব মাওলানা সাইফুল্লাহ, ঢাকা জেলা দক্ষিণের সমন্বয়ক মাওলানা আব্দুল্লাহ আশরাফ, মিজানুর রহমান প্রমুখ।

কেন্দ্র ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে ঢাকা, চট্টগ্রাম, সিলেট, খুলনা, বরিশাল, ময়মনসিংহ, রংপুর, কুমিল্লা, নরসিংদী, গাজীপুর, শরীয়তপুর, নারায়ণগঞ্জ, টাঙ্গাইল, কিশোরগঞ্জ, মানিকগঞ্জ, রাজবাড়ী, গোপালগঞ্জ, মুন্সিগঞ্জ, ফরিদপুর, মাদারীপুর, হবিগঞ্জ, মৌলভীবাজার, সুনামগঞ্জ, জামালপুর, নেত্রকোণা, ফেনী, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, নোয়াখালী, চাঁদপুর, লক্ষ্মীপুর, পঞ্চগড়, কুড়িগ্রাম, ভোলা, বগুড়াসহ দেশের প্রায় সব জেলায় জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো নিউজ

You cannot copy content of this page

You cannot copy content of this page