• বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ০৩:০৫ পূর্বাহ্ন

খাগড়াছড়ি শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের শিক্ষা উপ-সহকারী প্রকৌশলী সাইফুলের দুর্নীতি

অনলাইন ভার্সন
অনলাইন ভার্সন
আপডেটঃ : শুক্রবার, ২৩ জুন, ২০২৩

সরকারি অর্থে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান নির্মাণ সংস্থা “খাগড়াছড়ি শিক্ষা প্রকৌশল দপ্তরে” চলছে নানান অনিয়ম। এ প্রতিষ্ঠানটির উপ-সহকারী প্রকৌশলী(সিভিল) এই প্রতিষ্ঠানটিকে টাকা কামানোর মেশিনে পরিণত করেছেন। ঠিকাদারদের সঙ্গে যোগসাজশে নিম্নমানের উপকরণে নির্মিত হচ্ছে ভবন। অবস্থা এমন যে, উদ্বোধনের আগেই কোনো কোনো ভবন হেলে পড়ছে। কোথাও বছর না যেতেই খসে পড়ছে প্রতিষ্ঠানের পলেস্তারা। রহস্যজনক কারণে এই ব্যক্তির কব্জায় ছিল অসংখ্য প্রকল্প। বর্তমান কথার অনুসন্ধানে এসব তথ্য জানা গেছে।
সার্বিক বিষয়ে জানতে চাইলে নাম প্রকাশ না করার শর্তে প্রতিষ্ঠানের এক কর্মকর্তা বলেন, বহাল তবিয়তে দিন কাটাচ্ছেন খাগড়াছড়ি শিক্ষা প্রকৌশলের উপ-সহকারী প্রকৌশলী সাইফুল, ইঞ্জিনিয়ার সাইফুল খাগড়াছড়ি এলাকার গোমতীর সন্তান, চাকরি পাওয়ার পর থেকে খাগড়াছড়িতে মহা দিব্বি আরাম পায়ের উপর পা মেরে পয়সা কামাচ্ছেন , বিভিন্ন কন্টাক্টর থেকে পারসেন্টিস হিসেবে টাকা কেটে নিয়ে যাচ্ছেন সাইফুল । এই সাইফুলের বিরুদ্ধে এলাকার মানুষ তার সামনে দাঁড়িয়ে কথা বলতে ভয় পায়।
নিম্নমানের কাজ করে সরকারের কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে সাইফুল। এলাকার সচেতন মহল বলেন ,সাইফুল যদি সরকারি কর্মকর্তা হয়ে এলাকায় এত বছর যাবত কিভাবে কাজ করে? তার দুর্নীতি কি সরকার কি দেখেনা?
এবং আরো জানা যায় যে, ইঞ্জিনিয়ার সাইফুল শিক্ষা মন্ত্রণালয় জয়েন করার পর থেকে সবাইকে ম্যানেজ করে চলেন তার সাথে মুঠো ফোনে কথা বলতে চাইলে এ প্রতিবেদককে কথা বলতে অস্বীকৃতি জানান।
এলাকার মানুষ মনে করেন, এ ধরনের দুর্নীতিবাজ কে প্রতিহত না করা গেলে রাষ্ট্রের ব্যাপক ক্ষতি হবে। একজন কর্মকর্তায় এভাবে দীর্ঘদিন একই জায়গায় কাজ করলে বিভিন্ন ধরনের সমস্যার তৈরী করেন। তাই তাকে এই এলাকা থেকে বদলি করে অন্যত্র দেবার দাবী জানিয়েছেন এলাকার সচেতন মহল ও ভ’ক্তভোগিরা।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো নিউজ

You cannot copy content of this page

You cannot copy content of this page