• বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ০১:৩৮ পূর্বাহ্ন

সারা বিশ্বে আরও ৫১০ মৃত্যু করোনায়

অনলাইন ভার্সন
অনলাইন ভার্সন
আপডেটঃ : শনিবার, ৪ মার্চ, ২০২৩

করোনাভাইরাসে বিশ্বব্যাপী গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৫১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ সময় আক্রান্ত হয়েছেন ৯৩ হাজার ৭৮৬ জন। এ সময় সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ ৪৫ হাজার ৪ জন।

শনিবার (৪ মার্চ) সকালে কোভিডের হিসাব রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারস থেকে এ তথ্য পাওয়া যায়।এদিকে, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে সবচেয়ে বেশি মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রে। এ সময় দেশটিতে মৃত্যু হয়েছে ৯৩ জনের এবং আক্রান্ত হয়েছে ৮ হাজার ৪৮১ জন। একইসময়ে বিশ্বে বেশি আক্রান্তের ঘটনা ঘটেছে রাশিয়ায়। এ সময়ে দেশটিতে আক্রান্ত হয়েছে ১৪ হাজার ৫১৬ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৪০ জনের।এ ছাড়া, ফ্রান্সে আক্রান্ত হয়েছেন ৩ হাজার ১৯৪ জন এবং মারা গেছেন ২১ জন। ব্রাজিলে আক্রান্ত হয়েছে ৯ হাজার ২৬২ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৪৫ জনের। জাপানে আক্রান্ত হয়েছে ১০ হাজার ৫২২ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৬৭ জনের। দক্ষিণ কোরিয়ায় আক্রান্ত হয়েছেন ১০ হাজার ৪০৮ জন এবং মারা গেছেন ১১ জন। স্পেনে আক্রান্ত হয়েছেন ১ হাজার ১৫ জন এবং মারা গেছেন ১৫ জন। অস্ট্রেলিয়ায় আক্রান্ত হয়েছে ২ হাজার ৭৩৯ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ১২ জনের। তাইওয়ানে আক্রান্ত হয়েছেন ১৩ হাজার ৮১৩ জন এবং মারা গেছেন ৬২ জন।একইসময়ে পোল্যান্ডে আক্রান্ত হয়েছেন ৩ হাজার ২৯১ জন এবং মারা গেছেন ১৭ জন। চিলিতে আক্রান্ত হয়েছে ২ হাজার ৮৬১ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ১৩ জন। পেরুতে আক্রান্ত হয়েছেন ১৭১ জন এবং মারা গেছেন ৩০ জন। ফিলিপাইনে আক্রান্ত হয়েছেন ১৪২ জন এবং মারা গেছেন ৭ জন। প্যারাগুয়ে আক্রান্ত হয়েছেন ৭৪ জন এবং মারা গেছেন ৮ জন। সাইপ্রাস আক্রান্ত হয়েছে ১ হাজার ৫৯২ জন এবং মারা গেছেন ২৫ জন।বিশ্বে এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৬৮ কোটি ৫ লাখ ২৯ হাজার ৩৪৫ জন। এরমধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৬৮ লাখ ৪ হাজার ৫৪৪ জনের। সুস্থ হয়েছেন ৬৫ কোটি ৩৩ লাখ ৪১ হাজার ৬৮০ জন।উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের উহানে প্রথম কোভিড রোগী শনাক্ত হয়। এরপর ২০২০ সালের ১১ মার্চ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) কোভিডকে ‘বৈশ্বিক মহামারি’ হিসেবে ঘোষণা করে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো নিউজ

You cannot copy content of this page

You cannot copy content of this page