• মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ১১:৪৩ অপরাহ্ন

গুইমারায় বর্ণীল আয়োজনে ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপন

অনলাইন ভার্সন
অনলাইন ভার্সন
আপডেটঃ : মঙ্গলবার, ২৬ মার্চ, ২০২৪

মোঃ সালাউদ্দিন:- খাগড়াছড়ির গুইমারায় ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপন উপলক্ষে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক নেতৃত্ব এবং দেশের উন্নয়ন শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

২৬ মার্চ গুইমারা সরকারি মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের অডিটোরিয়ামে উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে উপজেলা নির্বাহী অফিসার রাজীব চৌধুরীর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মেমং মারমা।

এর আগে প্রথম প্রহরে সূর্যদয়ের সাথে সাথে ৩১ বার তোপধ্বনির পর উপজেলা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে শ্রদ্ধাঞ্জলী প্রদান করা হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, গুইমারা উপজেলা প্রশাসন, উপজেলা পরিষদ, গুইমারা থানা, বীর মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ও সকল সহযোগী সংগঠন, উপজেলা প্রেস ক্লাব, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, সরকারি,বেসরকারি প্রতিষ্ঠান সহ রাজনৈতিক, অরাজনৈতিক, আঞ্চলিক, সামাজিক সংগঠন ও প্রতিষ্ঠান।

পরে গুইমারা সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে কুরআন তেলাওয়াত, ত্রিপিটক ও গীতাপাঠের পর জাতীয় সংগীত পাঠের মাধ্যমে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়েছে।

শান্তির প্রতীক পায়রা উড়িয়ে মাঠে কুচকাওয়াজ পরিদর্শন ও সালাম গ্রহণ করেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মেমং মারমা উপজেলা নির্বাহী অফিসার রাজীব চৌধুরী,গুইমারা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি)মোঃ আরিফুল আমিন।

সশস্ত্র সালাম প্রদান করে পুলিশ, শরীরচর্চা ও কুচকাওয়াজে পুলিশ, আনছার – ভিডিপি, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা অংশ গ্রহণ করে।

প্যারেড কমান্ডার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন গুইমারা থানার এসআই (নিঃ) মোঃ আমিনুল ইসলাম ভূঞা।

শেষে ১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলন থেকে শুরু করে ১৯৭৫ সালের ১৫ই আগস্ট পর্যন্ত বিভিন্ন চিত্র ডিসপ্লে অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা, ডিসপ্লে অনুষ্ঠান উপভোগ শেষে পুরস্কার প্রদান করা হয় শিক্ষার্থীদের মাঝে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান কংজুরি মার্মা, বীর মুক্তিযোদ্ধা ম্রাসাথোয়াই মগ, মোঃ শাহ আলম, প্রেস ক্লাবের সভাপতি মোঃ নুরুল আলম, গুইমারা সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নির্মল নারায়ন ত্রিপুরা, হাফছড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মংশে চৌধুরী প্রমূখ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মেমং মারমা স্বাধীনতার কাঙ্খিত লক্ষ্য অর্জনে জনমুখী ও টেকসই উন্নয়ন, সামাজিক ন্যায়বিচার, স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে হবে। তিনি আরো বলেন সম্মিলিত প্রচেষ্টায় আমাদের প্রিয় মাতৃভূমি ক্ষুধা-দারিদ্র্যমুক্ত উন্নত দেশে পরিণত হোক, মহান স্বাধীনতা দিবসে এটাই হোক সকলের প্রত্যাশা।

নতুন প্রজন্মের জন্য একটি নিরাপদ, সুখী, সুন্দর ও উন্নত-সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ে তোলা আমাদের কর্তব্য মন্তব্য করে,গুইমারা উপজেলা নির্বাহী অফিসার রাজীব চৌধুরী বলেন, ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ কালরাতে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী অতর্কিত ভাবে নিরস্ত্র বাঙালির ওপর আক্রমণ চালায়।

২৬ মার্চের প্রথম প্রহরে বঙ্গবন্ধু আনুষ্ঠানিকভাবে বাংলাদেশের স্বাধীনতা ঘোষণা করেন। বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে দীর্ঘ নয় মাস সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে অর্জন করি স্বাধীন-সার্বভৌম বাংলাদেশ।

তিনি আরো বলেন দেশের ইতিহাস সম্পর্কে জানতে ও ভবিষ্যৎ প্রজন্মের কাছে পৌঁছে দিতে দেশের সকলকে সচেতন হতে হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো নিউজ

You cannot copy content of this page

You cannot copy content of this page