• বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ০১:৪৪ পূর্বাহ্ন

‘সাত মিনিটের ক্যান্সার চিকিৎসা’ শুরু হচ্ছে ইংল্যান্ডে

অনলাইন ভার্সন
অনলাইন ভার্সন
আপডেটঃ : বৃহস্পতিবার, ৩১ আগস্ট, ২০২৩

সারাবিশ্ব ডেস্ক

 

ক্যান্সার আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসায় এটিজোলিজুমাব নামের একটি ওষুধ ব্যবহার করা হয়। আর এ ওষুধটি রোগীর শিরায় আইভি ডিপ্রের (স্যালাইন) মাধ্যমে দেওয়া হয়। এটি শরীরে প্রবেশ করাতে ৩০ মিনিট থেকে ১ ঘণ্টার মতো সময় লাগে।

তবে এই চিকিৎসা পদ্ধতিতে পরিবর্তন আনা হচ্ছে। ওষুধটি এখন থেকে আর স্যালাইনের মাধ্যমে না দিয়ে ইনজেকশনের মাধ্যমে দেওয়া হবে। আর এটি শরীরে প্রবেশ করাতে সময় লাগবে মাত্র ৭ মিনিট।

বার্তাসংস্থা রয়টার্স বুধবার (৩০ আগস্ট) এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, ক্যান্সারের নতুন ‘সাত মিনিটের চিকিৎসাটি’ শুরু হবে ইংল্যান্ডে।

ওষুধ ও স্বাস্থ্যসেবা পণ্য নিয়ন্ত্রক সংস্থা (এমএইচআরএ) এর অনুমোদন পাওয়ার পর যুক্তরাজ্যের জাতীয় স্বাস্থ্য ব্যবস্থা (এনএইচএস) বিশ্বে প্রথমবারের মতো নতুন পদ্ধতিতে এ ওষুধ প্রয়োগ শুরু করবে। এরমাধ্যমে এনএইচএস প্রতি বছর কয়েকশ ক্যান্সার রোগীকে কম সময়ের মধ্যে চিকিৎসা সেবা দিতে পারবে। এতে করে এনএইচএস কর্মীদের সময় অনেক সাশ্রয় হবে।

এটিজোলিজুমাব নামের ওষুধটি টেসেনট্রিক নামেও পরিচিত। এটি দিয়ে বিভিন্ন ধরনের ক্যান্সারের চিকিৎসা করা হয়। যার মধ্যে রয়েছে ফুসফুস, স্তন, লিভার এবং মূত্রাশয়ের ক্যান্সার। ইংল্যান্ডে প্রতি বছর প্রায় ৩ হাজার ৬০০ মানুষকে এই ওষুধটি দেওয়া হয়।

যেসব রোগী এ ওষুধটির পাশাপাশি ক্যামোথেরাপি নেন তাদের হয়ত এখনো শিরার মাধ্যমেই এটি নিতে হবে।

ওষুধটি ‘চেকপয়েন্ট নিরোধক’ হিসেবে পরিচিত। এটি শরীরের ইমিউন সিস্টেমকে ক্যান্সার সেল শনাক্ত ও হত্যা করতে সহায়তা করে।

ওষুধটি ইনজেকশনের মাধ্যমে প্রয়োগ করলে রোগীদের হাসপাতালেও কম সময় কাটাতে হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো নিউজ

You cannot copy content of this page

You cannot copy content of this page