• সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ০৯:৪০ অপরাহ্ন

‘কাদেরকে দিয়ে অ্যান্টিবায়োটিকের কাজ করাতে চাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী’

অনলাইন ভার্সন
অনলাইন ভার্সন
আপডেটঃ : রবিবার, ২৭ আগস্ট, ২০২৩

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক

পতনের আশঙ্কায় প্রধানমন্ত্রী নিজের দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরকে দিয়ে ‘অ্যান্টিবায়োটিক’ এর কাজ করাতে চাচ্ছেন বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

রোববার (২৭ আগস্ট) নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচতলায় মৎসজীবী দলের উদ্যোগে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া সহ-দলটির অসুস্থ নেতাকর্মীদের সুস্থতা কামনায় দোয়া মাহফিলে এ মন্তব্য করেন তিনি।

বিএনপি ক্ষমতায় এলে একদিনে সব শেষ করে দেবে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের এমন বক্তব্যের প্রতিবাদ করে পাল্টা প্রশ্ন করে রিজভী বলেন, ‘বিএনপি ৮১ সালে ক্ষমতায় আসেনি? বিএনপি ক্ষমতায় থাকা অবস্থায় তো আজকের প্রধানমন্ত্রী দেশে ফিরেছিলেন। তিনি দেশে ফেরার ১৫ দিন পর স্বাধীনতার ঘোষক জিয়াউর রহমান মৃত্যুবরণ করেন। বিপক্ষ দল ও প্রতিপক্ষকে নির্মূল করার দৃষ্টান্ত আওয়ামী লীগের। সিরাজ শিকদার তো আপনাদের হাতে মারা গেছে। ইলিয়াস আলী, চৌধুরী আলম, সাইফুল ইসলাম হিরুকে তো আপনারা গুম করেছেন।’

বিনেপির কেন্দ্রীয় এই নেতা বলেন, ‘১৯৯১ ও ২০০১ সালে বিএনপি ক্ষমতায় ছিল, তখন আওয়ামী লীগের কী ক্ষতি হয়েছে? বরং আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এলে বিএনপির নির্বাচিত এমপিরা হারিয়ে যায়, ছাত্রনেতারা বিচারবহির্ভূত হত্যার স্বীকার হন।’

রিজভী বলেন, ‘সরকার আন্তর্জাতিকভাবে চারিদিক থেকে বিচ্ছিন্ন। সবাই এই সরকারকে ধিক্কার দিচ্ছে। আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলো ২০১৪ ও ২০১৮ সালের নির্বাচন নিয়ে সিরিজ প্রতিবেদনের পর এখন এই সরকারের কোথাও মুখ দেখানোর জায়গা নেই।’

কারাগারে দলের নেতাদের মৃত্যুর বিষয়টি উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘আমরা তো দেড় দশক ধরে লাঞ্ছিত, অপমানিত, নির্যাতিত, নিপীড়িত। এই মানবদেহ আর কত অত্যাচার সহ্য করবে? কারগারের ভেতরে একের পর এক নেতাকর্মীর মৃত্যু সংবাদ আসছে। পৃথিবীতে একদলীয় নিপীড়ক সরকার ক্ষমতায় থাকলে, যারা তাদের বিরুদ্ধে লড়াই করে তাদেরকে নানা ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে হত্যা করা হয়। স্বাভাবিক মৃত্যু হলেও এর পেছনে নানা ষড়যন্ত্র থাকে।’

দোয়া মাহফিলে উপস্থিত ছিলেন, বিএনপির স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মীর সরাফত আলী সপু, নির্বাহী কমিটির সদস্য মাওলানা শাহ মোহাম্মাদ নেছারুল হক, মৎসজীবী দলের সদস্য সচিব আব্দুর রহিম প্রমুখ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো নিউজ