• সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ১০:২৩ অপরাহ্ন

২০ মেরিন সেনা বহনকারী মার্কিন সামরিক বিমান বিধ্বস্ত

অনলাইন ভার্সন
অনলাইন ভার্সন
আপডেটঃ : রবিবার, ২৭ আগস্ট, ২০২৩

সারাবিশ্ব ডেস্ক

 

অস্ট্রেলিয়ায় একটি মার্কিন সামরিক বিমান বিধ্বস্ত হয়েছে। বিধ্বস্ত ওই বিমানটিতে ২০ জন মার্কিন মেরিন সেনা ছিলেন। রোববার (২৭ আগস্ট) সকালে অস্ট্রেলিয়ার উত্তর উপকূলে বিমানটি বিধ্বস্ত হয় এবং সেখানে এখন উদ্ধার অভিযান চলছে।

রোববার এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, অস্ট্রেলিয়ার উত্তর উপকূলে যুক্তরাষ্ট্রের একটি সামরিক বিমান বিধ্বস্ত হওয়ার পর উদ্ধার অভিযান চলছে। অস্ট্রেলিয়ান ব্রডকাস্টিং কর্পোরেশন (এবিসি) অনুসারে, রোববার ডারউইন থেকে প্রায় ৬০ কিলোমিটার (৩৭ মাইল) দূরে মেলভিল দ্বীপের কাছে অসপ্রে ভি-২২ মডেলের ওই সামরিক এয়ারক্রাফটটি বিধ্বস্ত হওয়ার পর বেশ কয়েকজনকে উদ্ধার করা হয়েছে।

এবিসি বলেছে, এখনও পর্যন্ত নিহতের কোনও খবর পাওয়া যায়নি। তবে একজনের শারীরিক অবস্থা গুরুতর এবং দুইজনের অবস্থা স্থিতিশীল রয়েছে।

অস্ট্রেলিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, অস্ট্রেলিয়া, যুক্তরাষ্ট্র, পূর্ব তিমুর, ইন্দোনেশিয়া এবং ফিলিপাইনের সামরিক বাহিনীর সমন্বয়ে বার্ষিক প্রিডেটর রান মহড়ার সময় দুর্ঘটনাটি ঘটেছে। অস্ট্রেলিয়ান ডিফেন্স ফোর্স (এডিএফ) জানিয়েছে, দুর্ঘটনাকবলিত অসপ্রেতে কোনও অস্ট্রেলিয়ান সেনা সদস্য ছিল না।

এডিএফ এক বিবৃতিতে বলেছে, ‘প্রাথমিক পর্যায়ে, আমাদের ফোকাস হচ্ছে দ্রুত উদ্ধার অভিযান পরিচালনা করা এবং আরোহীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা। উপযুক্ত সময়ে আরও তথ্য দেওয়া হবে।’

আল জাজিরা বলছে, যুক্তরাষ্ট্র এবং অস্ট্রেলিয়া প্রশান্ত মহাসাগরে একে অপরের প্রধান মিত্র এবং এই দেশ দুটি সাম্প্রতিক বছরগুলোতে ক্রমবর্ধমান চীনা চ্যালেঞ্জের মুখে সামরিক সহযোগিতা জোরদার করছে। এর আগে গত মাসে কুইন্সল্যান্ডের উপকূলে হেলিকপ্টার বিধ্বস্তের ঘটনায় চার অস্ট্রেলিয়ান সেনা নিহত হয়।

মার্কিন বিমান বাহিনীর মতে, অসপ্রে বিমানগুলো হচ্ছে টিল্ট-রোটার বিমান যাতে হেলিকপ্টার এবং টার্বোপ্রপ প্লেন উভয়ের বৈশিষ্ট্য রয়েছে। মূলত অসপ্রে এয়ারক্রাফট হচ্ছে এমন একটি বিমান যেটি তথাকথিত ‘খাড়াভাবে টেকঅফ ও অবতরণ’ করতে পারে। সামরিক এই বিমানটি ঘূর্ণনশীল ডানা রয়েছে যার মাধ্যমে এটিকে হেলিকপ্টারের মতো ওপরের দিকে উড্ডয়ন বা পরিচালনা করা যেতে পারে।

আবার একইসঙ্গে এটি গতানুগতিক বিমানের মতো উড়তে পারে। তবে এটি প্রচলিত হেলিকপ্টারের চেয়ে দ্রুত গতিতে ছুটতে পারে। আরও ভালো করে বললে, অসপ্রে হলো এমন একটি বিমান যা হেলিকপ্টারের মতো টেকঅফ ও ল্যান্ড করতে পারে এবং একইসঙ্গে বিমানের মতো উড়তে পারে। তবে এই ধরনের বিমানের একটি ঝামেলাপূর্ণ এবং বিতর্কিত ইতিহাস রয়েছে।

গত বছরের জুনে যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়া অঙ্গরাজ্যের দক্ষিণাঞ্চলীয় অ্যারিজোনার সীমান্তবর্তী ইম্পেরিয়াল কাউন্টিতে এমভি-২২বি অসপ্রে এয়ারক্রাফট বিধ্বস্ত হয়ে পাঁচজন মার্কিন মেরিন সেনা নিহত হয়েছিল।

এছাড়া গত বছরের মার্চ মাসে নরওয়েতে সামরিক জোট ন্যাটোর মহড়ার মধ্যে এই ধরনের এয়ারক্রাফট দুর্ঘটনার মুখে পড়ে। সেসময় ওই দুর্ঘটনায় চার মার্কিন মেরিন সেনা নিহত হয়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো নিউজ