• বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০:১৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
ভাষাশহীদদের প্রতি হালিশহর থানার শ্রদ্ধা নিবেদন সিন্দুকছড়ি জোনের মাসিক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ইউনিয়নের চট্টগ্রাম জেলার আহ্বায়ক কমিটি গঠন আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা উপলক্ষে বই পাঠ উৎসব অনুষ্ঠিত নাইক্ষ্যংছড়িতে আইন-শৃঙ্খলা সভায়- খাদ্যশস্য,ভোজ্য ও জ্বালানী তেল পাচার বন্ধ ও ৫ স্কুল খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত রাঙ্গামাটিতে ৩৫০ পিস ইয়াবা সহ দুই মাদক ব্যবসায়ী আটক সাভারে শহীদ মিনারের উদ্বোধন করেন: মঞ্জুরুল আলম রাজীব লামায় সন্ত্রাসী হামলায় মিয়ারাজ নামের এক ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী রক্তাক্ত আহত হয়ে হসপিটালে কাতরাচ্ছে নাইক্ষ্যংছড়ি কাঠ ব্যবসায়ী সমিতির নির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নিবার্চিত হওয়ার আভাস গুইমারা থানায় অনুষ্ঠিত হলো জমজমাট ব্যাডমিন্টন প্রতিযোগিতার ফাইনাল এবং র‍্যাফেল ড্রঃ অনুষ্ঠিত

পঞ্চগড়ে সংঘর্ষের ঘটনায় জাহিদ হাসান (৪০) নামে আরও এক যুবকের মৃত্যু

অনলাইন ভার্সন
অনলাইন ভার্সন
আপডেটঃ : শনিবার, ৪ মার্চ, ২০২৩

আহমদিয়া সম্প্রদায়ের সালানা জলসা বন্ধের দাবিতে বিক্ষোভ ও পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষের ঘটনায় জাহিদ হাসান (৪০) নামে আরও একজন মারা গেছেন। তাকে বিক্ষোভকারীরা পিটিয়ে মেরেছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ। এ নিয়ে নিহতের সংখ্যা দাঁড়াল দুইয়ে।

পুলিশ জানায়, জাহিদ হাসান নাটোরের বনপাড়া থেকে আহমদিয়া সম্প্রদায়ের সালানা জলসায় যোগ দিতে এসেছিলেন। তাকে পিটিয়ে মুখমণ্ডল বিকৃত করে দেওয়ার কারণে প্রথমে তার পরিচয় শনাক্ত করা যায়নি। পরে নানাভাবে পরিচয় নিশ্চিত হওয়া গেছে।

এর আগে, সংঘর্ষকালে আহত আরিফুর রহমান (২৭) নামে একজনকে হাসপাতালে নেওয়ার পথে মারা যান। তিনি জেলা শহরের মসজিদপাড়া এলাকার ফরমান আলীর ছেলে।পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, শুক্রবার জুমআর নামাজের পর আহমদিয়াদের তিন দিনব্যাপী বার্ষিক সালানা জলসা বন্ধসহ তদের অমুসলিম ঘোষণার দাবিতে জেলা শহরের বিভিন্ন মসজিদ থেকে খণ্ড খণ্ড বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়। সম্মিলিত খতমে নবুওয়ত সংরক্ষণ পরিষদের ডাকে এই বিক্ষোভ মিছিলটি কেন্দ্রীয় মসজিদের সামনে থেকে বড় পরিসরে চৌরঙ্গী মোড়ের দিকে আসতে থাকে। এ সময় পুলিশ তাদের বাধা দিলে সংঘর্ষ বাঁধে। পুলিশের উপর হামলা করে ইট পাটকেল ছুড়তে থাকে মুসল্লিরা। এ সময় পুলিশও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে টিয়ারশেল ও রাবার বুলেট ছোড়ে। বিক্ষোভকারীরা জেলা শহরের বিভিন্ন এলাকায় ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করে। তারা পুলিশ ও বিজিবির গাড়ি ভাঙচুর, ট্রাফিক পুলিশের অফিসে অগ্নিসংযোগ করে।

এছাড়া পঞ্চগড় বাজারে আহমদিয়াদের চারটি দোকানের মালামাল বের করে আগুনে পুড়িয়ে দেয়। তাদের অন্তত ২০টি বাড়িতে অগ্নিসংযোগ করা হয়েছে বলে দাবি করেছে আহমদিয়া সম্প্রদায়।

দীর্ঘদিন ধরেই আহমদিয়া সম্প্রদায়কে অমুসলিম ঘোষণার জন্য দাবি জানিয়ে আসছিল সম্মিলিত খতমে নবুওয়ত সংরক্ষণ পরিষদসহ বিভিন্ন ইসলামী সংগঠন। এবার পঞ্চগড়ের আহমদনগর এলাকায় ৩ মার্চ থেকে ৫ মার্চ পর্যন্ত তিনদিন ব্যাপী বার্ষিক সালানা জলসার আয়োজন করে। এই জলসা বন্ধ করার জন্য বৃহস্পতিবার দুপুর থেকে বিক্ষোভ, সড়ক অবরোধসহ ভাঙচুর ও আহমদিয়াদের বাড়িতে হামলা করে ইসলামী সংগঠনগুলোর কর্মী সমর্থকরা। শুক্রবারও বিক্ষোভ করে তারা। এরপরেই সংঘর্ষ বাঁধে।পুলিশ সুপার এস এম সিরাজুল হুদা বলেন, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। সালানা জলসা বন্ধ করতে বলা হয়েছে আহমদিয়াদের। তারা জলসা থেকে নিজ নিজ বাড়িতে ফিরেছেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো নিউজ

You cannot copy content of this page

You cannot copy content of this page